Skip to content
এটি একটি বিশুদ্ধজ্ঞানের শিক্ষা বিষয়ক প্রতিষ্ঠান

আজ মঙ্গলবার,
১৪ আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১১ সফর, ১৪৪২ হিজরি, শরৎকাল,
এখন বাংলাদেশ মান সময় সকাল ১১:০৮ মিনিট

রচনাবলী প্রকল্প

রবীন্দ্র রচনাবলী

রবীন্দ্র রচনাবলীতে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লেখা সমস্ত ছোটো গল্প, গান, উপন্যাস, নাটক, প্রবন্ধ ও রম্যরচনা আছে, যেগুলি আগেই বিশ্বভারতী ও সাহিত্য অকাদেমি (মূল ইংরেজি রচনা) থেকে পুস্তক হিসাবে বহু খণ্ডে প্রকাশিত হয়েছে।

বঙ্কিম রচনাবলী

‘দুর্গেশনন্দিনী’ দিয়েই তার সাহিত্য জীবনের সূচনা। লিখেছেন চৌদ্দটি বাংলা ও একটি ইংরেজি উপন্যাস, দশটি প্রবন্ধ গ্রন্থ। এছাড়া রয়েছে আটটি বিভিন্ন বিষয়ক ও অচলিত রচনা।

বিদ্যাসাগর রচনাবলী

বিদ্যাসাগরের রচনা এখন আর যুগের চাহিদা মেটাবে না, তবু আগ্রহী পাঠক ও গবেষকদের জন্য এডুলিচার বিদ্যাসাগর রচনাবলীতে তাই তাঁর সকল লেখাকেই স্থান দেওয়া হয়েছে।

নজরুল রচনাবলী

বিদ্রোহ ও প্ৰেম-চেতনা; পুরাণ ও বিভিন্ন ছন্দ ব্যবহারে নৈপুণ্য; আরবি, ফারসি, হিন্দি শব্দ ব্যবহার ও নতুন শব্দ গঠনে অনন্য বৈশিষ্ট্য কাজী নজরুল ইসলামকে বাংলা সাহিত্যের এক অমর কবির আসন দিয়েছে।

শরৎ রচনাবলী

শরৎচন্দ্র এমন একটি আনন্দ-ভোজের পাত্র সাজিয়েছেন স্বাদে গন্ধে তা বাংলা উপন্যাসের পরিধিকে প্রসারিত করেছে ও এনেছে এক অদৃষ্টপূর্ব বৈচিত্র্য যা আজও আকুল করে বাঙালী পাঠককে।

জীবনানন্দ রচনাবলী

কবিতা, গল্প, উপন্যাস, প্রবন্ধ, চিঠিপত্র ও লিট্যারেরি নোটস, এইসব কিছু নিয়েই জীবনানন্দ রচনাবলী, এযাবৎ প্রকাশিত গ্রন্থসমূহের অনুসরণে আমরা তৈরি করেছি এডুলিচার জীবনানন্দ রচনাবলী।

সুকুমার রচনাবলী

সন্দেশের সম্পাদক থাকাকালীন সুকুমার রায়ের লেখা ছড়া, গল্প ও প্রবন্ধ আজও বাংলা শিশুসাহিত্যে মাইলফলক হয়ে আছে। তার বহুমুখী প্রতিভার অনন্য প্রকাশ তার অসাধারণ ননসেন্স ছড়াগুলোতে।

সুকান্ত রচনাবলী

বাংলা সাহিত্যের প্রগতিশীল চেতনার অধিকারী তরুণ কবি। মারা গেছেন মাত্র একুশ বছর বয়সে। তাঁর রচনার সংখ্যাও সামান্য, কিন্তু এগুলোই তাঁকে দিয়েছে অসামান্য প্রতিষ্ঠা, বাংলা সাহিত্যে তাঁকে করেছে চিরঞ্জীব।

বিশুদ্ধজ্ঞান প্রকল্প

এডুলিচার পাঠশালা

পাঠশালা একটি এডুলিচার বিশুদ্ধজ্ঞান প্রকল্প৷ এই প্রকল্পটি সম্পূর্ণ উন্মুক্ত, অর্থাৎ পাঠশালায় প্রকাশিত গ্রন্থসমূহ সম্পূর্ণ বিনামূল্যে

শব্দকোষ প্রকল্প

সংসদ বাংলা অভিধান

শিরোনাম : সংসদ বাংলা অভিধান সংকলক : শৈলেন্দ্র বিশ্বাস প্রকাশক : সাহিত্য সংসদ (ভারত) ISBN

বাঙ্গালা ভাষার অভিধান

বিশ বছরের একক সাধনায় তিনি প্রায় পঁচাত্তর হাজার শব্দসম্বলিত বাঙ্গালা ভাষার অভিধান (১৯১৭) প্রণয়ন কর্তৃক সমাদৃত হয়ে থাকে।

এডুলিচার শব্দকোষ

বাংলা ভাষা দক্ষিণ এশিয়ার প্রাচীন বঙ্গ, আধুনিক রাজনৈতিকভাবে স্বাধীন রাষ্ট্র বাংলাদেশ ও ভারতের অঙ্গরাজ্য পশ্চিমবঙ্গের

বই আলোচনা

বাণী বসুর ক্ষত্তা

এই বইয়ের প্রধান চরিত্র যিনি, যাকে নিয়ে আবর্তিত হয়েছে এই বইটি। যিনি কৌরবদের হাজারো কুটিলতা, পঞ্চ-পাণ্ডবদের বীরত্ব এবং ভীষ্ম-শ্রীকৃষ্ণের বুদ্ধিমত্তা এবং স্থিরতার কাছে চাপা পড়া একটি নাম, তিনি হলেন বিদুর।

কাশ্মীরের কান্না — সমর ইসলাম

কাহিনী সংক্ষেপে: ইসলামিক ব্রডকাস্টিং এজেন্সি বা আইবিএর ঢাকা ব্যুরোর প্রধান হাসান মাহমুদ। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে

চলন্তিকা- আধুনিক বঙ্গভাষার অভিধান

চলন্তিকা- আধুনিক বঙ্গভাষার অভিধানসংকলক: রাজশেখর বসুপ্রকাশক: এম.সি.সরকার অ্যান্ড সন্স প্রাইভেট লি. কলকাতা।নতুন সংস্করণ: ১৪১৮ (সংশোধিত

বিকেলের মৃত্যু : শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়

সংক্ষেপে : ভীষণ ব্যস্ত বাবা-মায়ের একমাত্র কন্যা লীনা ভট্টাচার্য। টাকার জন্য নয়, অনেকটা সময় কাটাতেই

শব্দতত্ত্ব

ফেরা শব্দটি নির্ভেজাল আরবী

ফিরা, ফেরা — ক্রি. বি. ১ প্রত্যাবর্তন করা (অফিস থেকে কখন ফিরলে?); ২ অভিমুখী হওয়া,

সর্বভুক বাঙালী

অবাঙালীরা বিশেষ করে হিন্দি উর্দুভাষীরা বলে বাঙালী সবই খায়, পানিও খায়, ভাতও খায়। তাই আজ

সঠিক, সঠিক কেন?

বাংলায় বহুপদী বিশেষণ হিসেবে ব্যবহৃত দ্বিত্ব শব্দসমূহকে একপদী বিশেষণে রূপান্তর করতে শব্দের শুরুতে ‘স’ উপসর্গ ব্যবহৃত হয়৷

বিপদের কথা

বিপদ বিশেষ্য পদ, এর অপ্রচলিত একটি রূপ আছে, বিপৎ৷ শুদ্ধ বাংলায় একক শব্দ হিসেবে বিপৎ

বানান চিন্তা

চন্দ্রবিন্দুর পরিচয় ও ব্যবহার

চন্দ্রবিন্দু একটি পরাশ্রয়ী বৈশিষ্ট্যপূ্র্ণ বা নাসিক্য ধ্বনিনির্দেশক চিহ্ন যা দেখতে একটি অর্ধচন্দ্র (অর্ধেক চাঁদ) আকারের

বাংলা বানান ভাবনা

ভারতবর্ষীয় ভাষাসমূহের মধ্যে বাংলায় সর্বাধিক সাহিত্য সৃষ্টি হয়েছে৷ নোবেল প্রাইজের মতো সম্মাননা পাওয়ার যোগ্য সাহিত্যিক

রকমারী

শুভ নববর্ষ

বাংলা বর্ষগণনার উৎপত্তির বিষয়ে ব্যাপক বিতর্কিত দুইটি অভিমত হচ্ছে: ১. বাংলা সনের উৎপত্তি হয়েছে সম্রাট

অ্যালফাবেটের গল্প

পৃথিবীতে প্রথম বর্ণমালা আবিষ্কার করে ফিনিসীয়রা। তাদের বাস ছিল প্রাচীন ক্যানান দেশে, ইসরাইলের সঙ্গে। ফিনিসীয়রা

২০২০ © সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত।